শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

এক ছেলে তার বাবার কবর দিতে গিয়ে জানতে পারলো যেই এলাকায় কবর দিতে গিয়েছে, সেখানে কবর দিতে গেলে ঐ এলাকার বাড়ির মালিক হতে হবে। ।

ছেলেটি জানে ঐ এলাকায় তাদের কোনো বাড়ি নেই। পরবর্তীতে মা এবং বোনের সাথে যোগাযোগ করে জানা গেল,

ঐ এলাকায় তাদের বাড়ি আছে এবং সে জানতে পারলো তাদের বাড়ির রোড নাম্বার এবং বাড়ির নাম্বার।

যাই হোক, দাফনের কাজ সম্পন্ন হলো। পরবর্তীতে মা ও বোনের বক্তব্যে জানা গেল, বোনকে ফ্যামিলি থেকে কলেজে যাওয়ার জন্য প্রতিদিন যে ২০০ টাকা করে দেয়া হতো,

ঐ টাকা দিয়ে সে ঢাকার বনশ্রী প্রজেক্টে ঐ বাড়ি কিনেছে। সে আরো জানতে পারলো যে, ফ্যামিলির ৪টি বাড়ি ক্যাশ ক্যাপিটাল সব কিছুই বাবার অসুস্থতার সুযোগে মা এবং মেয়ে

সব নিজেদের নামে লিখিয়ে নিয়েছে।

এখন বর্তমানে সব কিছু তারা দখল করে আছে । এ নিয়ে ছেলে হতাশ। সে কি করবে, কোথায় যাবে? এমনকি রাতে সে ঘুমোতেও পারছেনা।

কলেজে যাওয়ার হাত খরচ ২০০ টাকা দিয়ে ঢাকার বনশ্রীতে ৬ তলা বিল্ডিং কিভাবে কেনা যায় এ নিয়ে ছেলে ভেবে কুল পাচ্ছে না।

বাবার মৃত্যু নিয়েও এখন তার সন্দেহ তৈরি হচ্ছে। ডেড বডির সাথে ডেথ সার্টিফিকেট এর বর্ণনার কোনো মিল খুজে পাচ্ছেনা সে।

বিজ্ঞজনদের পরামর্শ চেয়ে ছেলে তার জীবনের করূন গল্প শেয়ায় করে যাচ্ছে অনবরত।

আপনারা যদি কেউ বুদ্ধি পরামর্শ দিয়ে ছেলেকে সহয়তা করতে চান, তার সাথে যোগাযোগ করুন-

https://www.facebook.com/MonwarShipon

Facebook Comments
%d bloggers like this: