শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

বর্তমানে মহামারী আকার ধারন করেছে করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাস রীতিমত প্রাণঘাতি। এমনকি যে চিকিৎসক এই ভাইরাসের চিকিৎসা করাচ্ছেন তিনিও আক্রান্ত হয়ে পরছেন।

ইতোমধ্যে একজন চিকিৎসক মারাও গিয়েছেন। তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগিদের চিকিৎসা সেবায় কর্তব্যরত ছিলেন। কিছুদিনের মধ্যে তিনি নিজেও আক্রান্ত হয়ে যান এই প্রাণঘাতি ভাইরাসে এবং ২৫ জানুয়ারি চিনের একটি হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

তারা আশঙ্কা করছেন, সময় মতো এই ভাইরাস যদি কন্ট্রোল করা না যায়, তবে পরবর্তী দেড় বছরের মধ্যে প্রাণ হারাতে পারেন সাড়ে ছয় কোটি মানুষ।

এমন ভয়াবহ কথাই জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স সেন্টারের সিনিয়র গবেষক ড. এরিক টোনার।  ড. এরিক টোনার বলেন, ভাইরাসটি চীনে ছড়িয়ে পড়ার খবর পাওয়ার পরও

তিনি মোটেই অবাক হননি। এরিক টোনার বলেন, বেশ কিছুদিন ধরেই মনে হয়েছে, নতুন একটা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়বে। আর সেটি হবে একটি করোনাভাইরাস।

তিনি বলেন, তবে এখনও জানি না কতটা সংক্রামক এ ভাইরাসটি।  আমরা জানি, এটা একজন থেকে আরেকজনে ছড়ায়। তবে তার বিস্তার কতটুকু তা বলা যাচ্ছে না।

এরিক টোনার আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, এটা সার্স ভাইরাসের চেয়ে কিছুটা নমনীয়। সেটাই ভরসার জায়গা।

অন্যদিকে এটা সার্সের চেয়েও বেশি সংক্রামক হতে পারে। ছড়িয়ে পরতে পারে সর্বোত্র।

Facebook Comments
%d bloggers like this: