শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে
আধিপত্য বিস্তার কে নোয়াখালী জেলার কবিরহাট উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নে
সংঘর্ষের জের ধরে একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুলিবিদ্ধ বাহার উদ্দিন (৪৫) বাটইয়া
ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।মঙ্গলবার সকালে ছিন্নদ্রি
গ্রামের চৌরাস্তা এলাকায় এ সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।
বর্তমানে তিনি নোয়াখালীর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।
 হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ বাহার উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন দলীয় কোন্দল ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন ছাএলীগের সাধারণ
সম্পাদক তারেক আমিন জনি ও শাকিব গ্রুপের মধ্যে আনুমানিক সকাল ৯ টায় ছিন্নদি গ্রামের দোকান ঘর এলাকায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
এ সময় ইউনিয়ন ছাএলীগের সাধারণ সম্পাদক জনি অস্ত্র হাতে সাকিব গ্রুপ এর কয়েকজনকে ধাওয়া করে  আমার বসত বাড়িতে প্রবেশের চেস্টা করে।
তখন আমি তাকে আমার বাড়িতে প্রবেশের বাধা দিলে সে আমার বাম পায়ে গুলি করে। তিনি অভিযোগ করে বলেন,  বাটইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান
মিজানুর রহমানের মদদে ছাএলীগ নেতা জনি এলাকায় সন্ত্রাসী হামলা চালাচ্ছে।  এ ঘটনায় তিনি থানায় মামলা করবেন বলে জানা গেছে।
ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বলেন,  তাহার মদদে কেউ কোন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে না। তিনি আরো বলেন, গুলিবিদ্ধ বাহার
উদ্দিন  বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে যুক্ত থাকায় তাকে তিনি দলীয় পদ থেকে বাদ দিয়েছেন।
কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাসান গুলিবিদ্ধ হওয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত  করেছেন। এ ঘটনায় টিপু ও রুবেল নামে
আরো দুই যুবক আহত অবস্থায় কবিরহাট উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কেউ মামলা দায়ের করেনি।
তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখে পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা নিবে বলে জানিয়েছে।
Facebook Comments
%d bloggers like this: