ব্যাংকে টাকা রাখাও এখন রিস্ক

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

‘আমানত সুরক্ষা আইন ২০২০’-এর যে খসড়াটি চূড়ান্ত করা হয়েছে, তা আদৌ গ্রাহকদের আমানতের সুরক্ষা দেবে কি? এ প্রশ্নটি এখন বড় হয়ে দেখা দিয়েছে।

কারণ আইনটিতে যেসব বিধান অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, কোনো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান অবসায়িত (বন্ধ) হলে প্রত্যেক আমানতকারী সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পাবেন।ওই প্রতিষ্ঠানের কোনো গ্রাহকের একাধিক অ্যাকাউন্টে ১ লাখ টাকার বেশি থাকলেও তিনি সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকাই পাবেন। একজন গ্রাহকের ১ কোটি টাকা ব্যাংকে থাকলে সেক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের অবসায়ন হলে গ্রাহক ওই ১ লাখ টাকার বেশি ক্ষতিপূরণ পাবেন না, অর্থাৎ তার প্রায় পুরোটাই ক্ষতি। তাহলে এটি কী ধরনের সুরক্ষা আইন!

প্রকৃতপক্ষে খসড়া আমানত সুরক্ষা আইনটি মাঝারি ও বড় আমানতকারীদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হবে। এর ফলে শুধু যে আমানতকারীরাই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন তা নয়, ক্ষতিগ্রস্ত হবে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতি। এ বিষয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অর্থ উপদেষ্টা ড. এবিএম মির্জ্জা আজিজুল ইসলামের বক্তব্য প্রণিধানযোগ্য।

তিনি যুগান্তরকে বলেছেন, ক্ষতিপূরণের অঙ্ক খুবই কম। এতে গ্রাহকরা ধীরে ধীরে আমানত তুলে নেবেন। তিনি আরও বলেছেন, এ আইনটি সঠিক হচ্ছে না। এতে ব্যাংকগুলোতে আমানতের প্রবাহ কমবে। আর আমানত কমলে ঋণ দেয়ার ক্ষমতাও কমবে ব্যাংকের। আর ঋণ দিতে না পারলে বিনিয়োগ হবে না, যা অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

দেশে বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৮ কোটি হিসাবধারী গ্রাহক রয়েছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে টাকার পরিমাণ ১ লাখ টাকার বেশি।

শুধু উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্ত নয়, বহু সাধারণ মানুষেরই এখন ১ লাখ টাকার উপরে এফডিআর রয়েছে। তাদের আমানতের সুরক্ষা দেয়া জরুরি। সম্প্রতি একটি লিজিং কোম্পানি অবসায়িত হলে এর আমানতকারীদের অর্থ ফেরত পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়।

এ ঘটনার পর ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকরা তাদের আমানত সুরক্ষার প্রয়োজনীয়তা আরও বেশি করে অনুধাবন করছেন। তাছাড়া দুর্নীতি, জালিয়াতি ও অত্যধিক খেলাপি ঋণের কারণে দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ভিত্তি দুর্বল হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, এ ধরনের অনেক প্রতিষ্ঠান থেকে আমানতকারীরা তাদের অর্থ তুলতে গিয়ে ব্যর্থ হচ্ছেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে গ্রাহকদের আমানতের সুরক্ষা নিশ্চিত করা যেখানে আরও বেশি জরুরি, সেখানে ক্ষতিপূরণের নামে উল্টো ‘ক্ষতির’ বিধান সংবলিত আইন গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

এ আইনের মাধ্যমে মূলত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর স্বার্থেরই সুরক্ষা হবে, গ্রাহকদের নয়। কাজেই গ্রাহকদের আমানতের সুরক্ষার দিক বিবেচনা করে আইনটি শুধু নামে নয়, সত্যিকার অর্থেই যুগোপযোগী করা দরকার বলে আমরা মনে করি। সরকারের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ অবিলম্বে এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেবে, এটাই কাম্য।

সোর্স: যুগান্তর

জাতীয়

ছাত্রলীগ নেতার গুলীতে আওয়ামী লীগ নেতা গুরুতর আহত ।

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথেআধিপত্য বিস্তার কে নোয়াখালী জেলার কবিরহাট উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নে সংঘর্ষের জের ধরে একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুলিবিদ্ধ বাহার উদ্দিন (৪৫) বাটইয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।মঙ্গলবার সকালে ছিন্নদ্রি গ্রামের চৌরাস্তা এলাকায় এ সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। বর্তমানে তিনি নোয়াখালীর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ বাহার উদ্দিন অভিযোগ […]

Read More
অগ্রনী ব্যাংক
জাতীয়

অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা করোনা আক্রান্ত, প্রিন্সিপাল শাখা বন্ধ

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথেএকজন কর্মকর্তা করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হওয়ায় রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখার কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বুধবার (৮ এপ্রিল) অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামস-উল ইসলাম বলেন, আমাদের একজন কর্মকর্তা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর প্রিন্সিপাল শাখার কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা তিনি আরও বলেন, করোনা ভাইরাসে […]

Read More
নদীতে ডুবে গেল
জাতীয়

নদীতে ডুবে গেল ১০ টাকা কেজির ৪০০ বস্তা চাল

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথেব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় ১০ টাকা কেজি দরের ৪০০ বস্তা (১২ টন) সরকারি চালসহ একটি নৌকা ডুবে গেছে। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা সদরের স্পিডবোড ঘাটের সামনে এই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। চালগুলো নবীনগর উপজেলা খাদ্যগুদাম থেকে ডিলার জিয়াউদ্দিন দুটি নৌকা যোগে একই উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নে নিয়ে যাচ্ছিলেন। উপজেলা সদরের স্পিডবোড ঘাটের সামনে তিতাস […]

Read More
%d bloggers like this: